ঢাকা বুধবার, মে ২৯, ২০২৪

Popular bangla online news portal

Janata Bank
Rupalibank

শুধু বন নয় রাস্তাঘাটের গাছও কেটে উজাড় করা হয়েছে : এবি পার্টি


নিউজ ডেস্ক
১৬:৪৭ - মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
শুধু বন নয় রাস্তাঘাটের গাছও কেটে উজাড় করা হয়েছে : এবি পার্টি

তীব্র তাপদাহে জনজীবন বিপর্যস্ত। কৃষি, শিল্পসহ সব খাতে মারাত্মক মন্দা। বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ে মানুষ দিশাহারা। দরিদ্র মানুষ আছে অবর্ণনীয় কষ্টে। রোগ-শোকের প্রকোপে হাসপাতালে জায়গা নেই, এককথায় দেশ গরমে পুড়ছে। কিন্তু ফাইভ পার্সেন্ট সরকারের কোনো বিকার নেই। এ অবস্থায়ও তারা মিথ্যা উন্নয়নের বেসুরো বাঁশি বাজিয়ে যাচ্ছে। 

আমার বাংলাদেশ পার্টি ‘এবি পার্টি’ আয়োজিত মিডিয়া ব্রিফিংয়ে এসব অভিযোগ করেন দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ। 

তীব্র তাপদাহ, পরিবেশ ও জনজীবনে বিপর্যয়, দেশব্যাপী বিদ্যুৎ সংকটের প্রেক্ষাপটে সরকারের মৌনতা ও নিষ্ক্রিয়তার প্রতিবাদে বিজয় নগরে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আজ মঙ্গলবার বিকেলে এ ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়। 

যুগ্ম সদস্যসচিব ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদের সঞ্চালনায় ও প্রফেসর ডা. আব্দুল ওহাব মিনারের সভাপতিত্বে মিডিয়া ব্রিফিংয়ে বক্তব্য রাখেন এবি পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম ও সদস্যসচিব মজিবুর রহমান মঞ্জু। 

অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম বলেন, বৈশ্বিক তাপদাহের জন্য শিল্পোন্নত দেশ গুলোই মূলত দায়ী। কিন্তু দিন শেষে আমাদের নিজেদের বাঁচার ব্যবস্থা নিজেদের উদ্যোগেই করতে হবে। আমাদের দেশ ছিল সুজলা সুফলা, আজ কী এমন হলো! কেন প্রকৃতি, পরিবেশ এত বিরূপ আচরণ করছে তা আমাদের বিবেচনায় নিতে হবে। নদী, খাল, বিল সবই নিঃশেষ হওয়ার পথে। প্রধান নদীগুলোর উৎসমুখে বাঁধ নির্মাণ করে পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্রটি বাংলাদেশকে মরুভূমিতে পরিণত করার প্রক্রিয়া করছে। ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা খাল, বিল দখল করে অবৈধভাবে দালান কোঠা নির্মাণ করেছে। বনের গাছ শুধু নয় রাস্তাঘাটের গাছ পর্যন্ত কেটে উজাড় করা হয়েছে।  

 মজিবুর রহমান মঞ্জু বলেন, গত ৩ দশকে রাজধানী থেকে ২৪ বর্গকিলোমিটার আয়তনের জলাধার উধাও হয়ে গেছে এবং প্রায় ১০ বর্গকিলোমিটার সবুজ কেটে সাফ করে ফেলা হয়েছে। এগুলোর পেছনে রয়েছে সরকারের ছত্রছায়ায় থাকা প্রভাবশালী মহল। 

মঞ্জু বলেন, আজকে তীব্র তাপদাহে রাজধানীবাসীর জনজীবন যে বিপর্যস্ত এর সিংহভাগ দায় ক্ষমতাসীনদের। তীব্র গরমে কৃষি, শিল্পসহ সব খাতে মারাত্মক মন্দা চলছে। সরকার নাকি বিদ্যুৎ উৎপাদন করে সয়লাব করে ফেলেছে অথচ বিদ্যুতের ঘন ঘন লোডশেডিংয়ে মানুষ দিশাহারা। রোগ শোকের প্রকোপে হাসপাতালগুলোতে তিল পরিমাণ জায়গা নেই। জনগণের এই চরম দুর্ভোগ ও কষ্টকর অবস্থায়ও ফাইভ পার্সেন্ট ডামি সরকার মিথ্যা উন্নয়নের বেসুরো বাঁশি বাজিয়ে যাচ্ছে। 

মিডিয়া ব্রিফিংয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন এবি পার্টির প্রচার সম্পাদক আনোয়ার সাদাত টুটুল, মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আলতাফ হোসাইন, সহকারী সদস্যসচিব শাহ আব্দুর রহমান, এম আমজাদ খান, এবি পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তরের যুগ্ম আহ্বায়ক ফিরোজ কবির, সদস্য সচিব সেলিম খান, দক্ষিণের যুগ্ম সদস্যসচিব সফিউল বাসার, আহমাদ বারকাজ নাসির, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হালিম নান্নু, যুবপার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক তোফাজ্জল হোসেন রমিজ, সদস্যসচিব মাহমুদ আজাদ, উত্তরের আহ্বায়ক হাদিউজ্জামান খোকন, সদস্য সচিব শাহিনুর আক্তার শীলা, কেন্দ্রীয় নেত্রী ফেরদৌসী আক্তার অপি, ছাত্রপক্ষের সহকারী সদস্যসচিব হাসিবুর রহমান খান, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মশিউর রহমান মিলু, যাত্রাবাড়ী থানা সমন্বয়ক সিএমএইচ আরিফ প্রমুখ।