• ঢাকা
  • শনিবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ১২ জানুয়ারি, ২০২২

আগুন নিভিয়ে ফেলায় প্রাণে বাঁচলেন ২০০ রোগী

অনলাইন ডেস্ক

শেরপুর ২৫০ শয্যা জেলা সদর হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে হাসপাতালের দোতলায় এ ঘটনা ঘটে। তবে দ্রুত সময়ে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন আগুন নিভিয়ে ফেলায় বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে হাসপাতালের ২ শতাধিক রোগী ও স্টাফ। 

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুরে জেলা সদর হাসপাতালের নতুন ভবনে ধোয়া উঠতে দেখে রোগীর স্বজনরা। এরপর তারা বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানায়। পরে খবর পেয়ে হাসপাতালের সামনে অবস্থিত ফায়ার সার্ভিসের একটি দল গিয়ে দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে আগুন লাগার খবর পেয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা ও ভর্তি রোগীরা অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে নিচে নেমে আসেন।

এ বিষয়ে শেরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক জাবেদ হোসেন মুহাম্মদ তারেক জানান, খবর পেয়ে আমরা দ্রুত কাজ শুরু করি। যেহেতু ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন হাসপাতালের বিপরীত পার্শ্বে। তাই দ্রুতসময়ে আগুন নিভিয়ে ফেলা সম্ভব হয়েছে। এ ঘটনায় কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

এ বিষয়ে জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. খাইরুল কবীর সুমন জানান, আমরা কতটা অসচেতন তা এ ঘটনায় বোঝা গেল। হাসাপাতালের মতো গুরুত্বপূর্ণস্থানে ধুমপান করা হয়। আবার সেটি সম্ভবত কেউ হাসপাতালের দোতলায় ময়লা-আবর্জনার স্তুপে ফেলেছিল। সেখান থেকেই আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে। তবে আগুন বিদ্যুতিক তারের মাধ্যমে ছড়িয়ে গেলে বড় ধরনের বিপদ ঘটার আশঙ্কা ছিল।

আরও পড়ুন