• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২৯ জুলাই, ২০২১
সর্বশেষ আপডেট : ২৯ জুলাই, ২০২১

ছেলেকে বাঁচাতে আইসিইউ ছেড়ে মারা গেলেন মা

অনলাইন ডেস্ক
[sharethis-inline-buttons]

শ্বাস নিতে পারছে না ছেলে। মুমূর্ষু অবস্থায় আইসিইউতে শুয়ে থাকা মায়ের কানে খবরটা যেতেই ছটফট শুরু করে দেন। কিন্তু প্রয়োজন থাকলেও শয্যা খালি না থাকায় ছেলেকে আইসিইউ সাপোর্ট দিতে পারছেন না চিকিৎসকরা। ছেলের ছটফটের কথা শুনে নিজের হাতে লাইফ সাপোর্টের সরঞ্জাম খুলে ছেলেকে আইসিইউতে আনতে চিকিৎসকদের ইশারা করেন তিনি। যেন প্রিয় সন্তান বেঁচে থাকে। শত চেষ্টা করেও মাকে বুঝাতে পারেননি চিকিৎসকরা। তখন এক প্রকার বাধ্য হয়ে মাকে নামিয়ে আইসিইউ বেডে তোলা হয় ছেলেকে।

ভাগ্যের নির্মম পরিহাস, আইসিইউ থেকে নামার এক ঘণ্টার মাথায় পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে করোনার কাছে হার মানে মা। ছেলে বেঁচে আছেন। তবে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাতে ওই হাসপাতালে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। বুধবার (২৮ জুলাই) রাতে হাসপাতালের আইসিইউ বেডের ইনচার্জ ডা. রাজদ্বীপ বিশ্বাস এসব তথ্য জানান।

জানা যায়, নগরের কোতোয়ালী থানার দিদার মার্কেট সিঅ্যান্ডবি কলোনি এলাকার বাসিন্দা মা কানন প্রভা পাল (৬৫) গত ১৫ জুলাই করোনা আক্রান্ত হয়ে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন। এরমধ্যে অবস্থার অবনতি হলে গত ২২ জুলাই তাকে আইসিইউতে আনা হয়। অন্যদিকে ২১ জুলাই করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের সাধারণ ওয়ার্ডে ভর্তি হন ছেলে শিমুল পাল(৩৮)। এর মধ্যে বুধবার সকাল থেকে ছেলে শিমুলের তীব্র শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। কমতে থাকে অক্সিজেন লেভেল। পরে মায়ের ছেড়ে দেওয়া আইসিইউর বেডেই এখন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন শিমুল পাল।

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. আব্দুর রব বলেন, মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাতে বৃদ্ধ মা ছেলের জন্য আইসিইউ ছেড়ে দিয়েছেন। এই ঘটনাটি আমাদের চোখের সামনে ঘটেছে। কিন্তু আমরা নিরূপায়। মা বেঁচে নেই।

[sharethis-inline-buttons]

আরও পড়ুন

  • চট্টগ্রাম বিভাগ এর আরও খবর