দক্ষিণ আমেরিকার সেরা আর্জেন্টিনা আর ইউরোপসেরা ইতালি মুখোমুখি হতে পারে ‘ম্যারাডোনা সুপার কাপ’-এ। এমন একটা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল বেশ কিছুদিন ধরেই। এবার আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশন সভাপতি দিলেন একে আনুষ্ঠানিক এক রূপ। ক্লদিও তাপিয়া জানালেন, দুই ফেডারেশনের মধ্যে এই ম্যাচের সম্ভাবনা, সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে আলোচনা চলছে এখন।

এই চাওয়া অবশ্য দুই ফেডারেশনেরই নয় কেবল। বরং উয়েফা আর কনমেবলও চায় এমন কিছুই। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ‘ম্যারাডোনার শহর’ নেপলসে আয়োজন করতে চায় ম্যাচটি।

আর্জেন্টিনা ফুটবল প্রধান তাপিয়া জানালেন এটা দুই ফেডারেশনের স্বপ্নও বটে। বললেন, ‘এটা একটা স্বপ্ন তবে দুই ফেডারেশনের জন্য এটা একটা প্রয়োজনীয়তাও বটে। আমি জানি এর আগে অনেক কাজ করতে হবে কিন্তু আমাদেরকে তারও আগে ক্যালেন্ডারে এর জায়গা খুঁজে বের করতে হবে। ইউরোপীয় ক্লাবগুলোকে আন্তর্জাতিক ফুটবলের বিরতিতে খেলোয়াড়দেরকে ছাড়তে হবে তিনটি বেশি দিনের জন্য। আমরা এটা চাই, ইতালিও চায়।’

আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে নতুন ইউরোপীয় মৌসুম। এরপর সেপ্টেম্বর, অক্টোবর আর নভেম্বরে আন্তর্জাতিক ফুটবলের বিরতি থাকলেও ঠাসবুনটের সূচি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের। ফলে এই ম্যাচের সম্ভাব্য সময় ধরা হচ্ছে আসছে ডিসেম্বর কিংবা জানুয়ারিতে।

ভেন্যু হিসেবে দেখা হচ্ছে ন্যাপোলি স্টেডিয়ামকেই। কারণ কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনা আর্জেন্টিনায় যেমন ইশ্বরতুল্য সম্মান পান, ইতালির নেপলস অঞ্চলেও ঠিক তাই। ন্যাপোলিতে ১৯৮৪ সালে যোগ দিয়ে যে তিনি ক্লাবের ইতিহাসে একমাত্র সিরি’আ এনে দিয়েছিলেন!

আপাতত নানা হিসেবের বেড়াজালে আছে এই ম্যাচের ধারণাটি। সব হিসেব মিললে তবেই ধারণা থেকে বাস্তবতায় রূপ নেবে সেটা।