বেসিক সাংবাদিকতা ও উপস্থাপনা নিয়ে দুই দিনব্যাপী শিক্ষার্থীদের ভার্চুয়ালি সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ কর্মশালা শেষ করলো সরকারি তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতি (সতিকসাস)। দুই দিনব্যাপী এ কর্মশালায় তিতুমীর কলেজের প্রায় ৪০০ শিক্ষার্থী স্বতঃস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন। কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন দেশের খ্যাতিমান সাংবাদিকবৃন্দ।

শুক্রবার (৯ জুলাই) থেকে শনিবার (১০ জুলাই) পর্যন্ত এ কর্মশালা অনুষ্টিত হয়। দুই দিনব্যাপী পুরো কর্মশালায় সঞ্চালনায় ছিলেন, তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাব্বির আহমেদ। কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতির সভাপতি শামিম হোসেন শিশির।

উক্ত কর্মশালায় প্রথম দিনে প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির অনুসন্ধানী অনুষ্ঠান তালাশের সাবেক উপস্থাপক মুনজুরুল করিম, দৈনিক সময়ের আলোর নির্বাহী সম্পাদক ও ডয়েচে ভেলের বাংলাদেশ প্রতিনিধি হারুন উর রশিদ, দৈনিক কালের কণ্ঠের সাবেক ক্রীড়া সাংবাদিক ও “নট আউট নোমান” এর প্রতিষ্ঠাতা নোমান মোহাম্মদ। কর্মশালার দ্বিতীয় দিনে প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন, সময় টিভির সাবেক বার্তা সম্পাদক, লেখক ও সাংবাদিক তুষার আবদুল্লাহ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিকেশন ডিজঅর্ডারস বিভাগের চেয়ারম্যান শান্তা তাওহিদ, চ্যানেল আই ও রেডিও ভূমির সিনিয়র নিউজ প্রেজেন্টার হৃদিতা রেজা।

এছাড়াও ভার্চুয়াল এ কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন- তিতুমীর কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর তালাত সুলতানা, তিতুমীর কলেজের শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক এস এম কামাল উদ্দিন হায়দারসহ তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতির সাবেক ও বর্তমান সদস্যবৃন্দ।

দুই দিনব্যাপী কর্মশালা শেষ করে এক প্রশিক্ষণার্থী শিক্ষার্থী সাব্বির হোসেন বলেন, সরকারি তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতির আয়োজনে দুদিন ব্যাপী সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত এবং সতিকসাসের প্রতি কৃতজ্ঞ। আলহামদুলিল্লাহ এই দুইদিন ই প্রশিক্ষণ চলার পুরোটা সময়ই মনোযোগ দিয়ে প্রশিক্ষকদের কথা শুনেছি। প্রতিটি প্রশিক্ষকরাই খুবই আন্তরিকভাবে আমাদেরকে প্রশিক্ষণ দিয়েছেন তাদের কথা গুলোর সাংবাদিকতার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই কর্মশালাটি ইনশাআল্লাহ পরববর্তীতে সাংবাদিকতা প্রফেশনাল আমার জীবনের প্রতিটি পর্যায়ে সফল হতে আমাকে সাহায্য করবে। ধন্যবাদ সতিকসাসকে আমাকে এমন একটি সুযোগ করে দেওয়ার জন্য। সতিকসাসের সাথে থাকবো সব সময়।

দুই দিনব্যাপী সাংবাদিকতা কর্মশালা সর্ম্পকে তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতর সভাপতি শামিম হোসেন শিশির বলেন, করোনার কারনে সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ কর্মশালা ভার্চুয়ালি নিতে হয়েছে। ভার্চুয়াল হলেও আমরা প্রশিক্ষকদের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি। আমরা আশা করছি কর্মশালায় প্রশিক্ষণর্থীদের থেকে ভালো কিছু কাজ পাবো। এবং ক্যাম্পাসে আরো সাংবাদিক তৈরিতে এ কর্মশালা কাজে আসবে। সৃজনশীল কাজে সব সময় তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতি সব সময় ছিল এবং থাকবে।