মাত্র চার মাস আগেই ঘটা করে বাগদান সেরেছিলেন অভিনেত্রী মেহরিন কৌর পীরজাদা ও রাজনীতিবিদ ভাব্য বিষ্ণোই। এবার সেই বাগদান ভেঙে দিলেন মেহরিন ও ভাব্য। আমির খান ও  কিরণ রাওয়ের পথ অনুসরণ করে তারাও শনিবার (৩ জুলাই) নিজেদের বিচ্ছেদের সিদ্ধান্তের কথা জানান।

শনিবার ইনস্টাগ্রামে অভিনেত্রী মেহরিন কৌর পীরজাদা জানান, ‘মান এবং সামঞ্জস্যের অভাবে যৌথভাবে আমরা আমাদের বাগদান ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পরস্পরের প্রতি সম্মান রেখেই জানাতে চাই যে আমি কোনোভাবেই ভাব্য এবং তার পরিবারের সঙ্গে সম্পর্কিত নই। যেহেতু এটা একান্ত ব্যক্তিগত বিষয়, তাই এর চেয়ে বেশি আর কিছু বলতে চাই না। আগামী দিনে আরও ভালো কাজ করতে চাই।’

অন্যদিকে ভাব্য বিষ্ণোই লেখেন, ‘সম্মানের সঙ্গেই এই সম্পর্ক থেকে আমি বেরিয়ে যাচ্ছি… মেহরিন বা ওর পরিবারের প্রতি আমার ভালোবাসা ও শ্রদ্ধায় কোনো কমতি নেই। তবে ভাগ্য আমাদের জন্য অন্য গল্প লিখেছে…।’

গত মার্চ মাসেই রাজস্থানের জয়পুরে ডেসটিনেশন এনগেজমেন্ট সেরেছিলেন অভিনেত্রী মেহরিন কৌর পীরজাদা ও রাজনীতিবিদ ভাব্য বিষ্ণোই। পরে করোনা আক্রান্ত হন মেহরিন। সেসময়ও অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন ভাব্য তার দেখভাল করছেন। তবে হঠাৎ মেহরিন-ভাব্যর বাগদান ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্তে অবাক ভক্তরা। ইতোমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে বাগদানের ছবিও মুছে ফেলেছেন তারা।

মেহরিন পীরজাদা ‘ফিল্লৌরি’ ছাড়াও দক্ষিণী ছবি মহানুভবুদু, নেঞ্জিল থুনিভিরুন্ধল, জওয়ান, কাবাচাম, চাণক্য, এন্থা মনছীভাদবুরয়া এবং অশ্বথামার মতো ছবিতে কাজ করেছেন। আর ভাব্য বিষ্ণোই কংগ্রেস নেতা।