প্রাণঘাতী করোনার সংক্রমণরোধে চীনের উপহার হিসেবে পাওয়া সিনোফার্মের টিকা এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ফাইজার টিকা আগামী সপ্তাহে প্রয়োগ শুরু হবে।

আজ সোমবার (১৪ জুন) দুপুরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে  এসব কথা বলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম।

তিনি বলেন, তাপমাত্রার জটিলতার কারণে এই টিকা শুধু ঢাকা মহানগরীর কিছু হাসপাতালে দেওয়া হবে। প্রাথমিকভাবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল এবং জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইন্সিটিটিউটে ফাইজারের টিকা দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে।

সিনোফার্মের টিকা প্রসঙ্গে অধ্যাপক ডা. খুরশীদ আলম আরও বলেন, সাধারণত মেডিকেল শিক্ষার্থীদের সিনোফার্মের টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যে সারাদেশে সরকারি ৩৭টি মেডিকেল শিক্ষার্থীর টিকা দেওয়া শুরু হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার জন্য কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের চীনের টিকা দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত রোববার (১৩ জুন) বিকেলে চীনের উপহারের আরও ছয় লাখ ডোজ টিকা ঢাকায় এসে পৌঁছায়। এর আগে গত ১২ মে বাংলাদেশকে ৫ লাখ ডোজ টিকা উপহার দিয়েছিল চীন। এছাড়াও চীন ও রাশিয়া থেকে টিকা পেতে আলোচনা চলছে। সেটা এলেই প্রথম ডোজ পূর্ণাঙ্গভাবে টিকা দেওয়া শুরু করা যাবে।