রাজনৈতিক সেই পরিবেশ তৈরির দায়িত্ব বিএনপির নেতাকর্মীদের হাতেই মন্তব্য করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, বিএনপির তরুণদের মধ্যে রাজনীতি দেখা যাচ্ছে না বলেই খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা সম্ভব হচ্ছে না।

আজ বৃহস্পতিবার (১০ জুন) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এসময় বন্দি নেত্রীকে মুক্ত করতে সবাইকে সুসংগঠিত হওয়ার আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।

 

‘এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার সময় তার’ কবি হেলাল হাফিজের কবিতার লাইন উল্লেখ্য করে বিএনপির তরুণদের উদ্দেশে তিনি বলেন, এই কথাটি মনে না রাখলে আওয়ামী দানবদের সঙ্গে যুদ্ধে জয়ী হতে পারবে না।

আওয়ামী লীগের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, গায়ের জোরে নয় ভোটের মাধ্যমে সরকার নির্বাচন করতে চাই।

জিয়াউর রহমানের গণতন্ত্র ছিলো তামাশা ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের পাল্টা জবাব দিয়ে ফখরুল বলেন, এরা সব জোকার, সব মিথ্যে বলে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ হচ্ছে। করোনাকালে মানুষ বাঁচার লড়াই করছে আর সরকারের লোকেরা চুরি করছে।

নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে আগামীতে আন্দোলনে যাওয়ার হুশিয়ারি দিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, দাবি এখন একটাই চলে যাও, চলে যাও, রেহাই দাও বাংলাদেশকে। আমাদের পরিষ্কার কথা, অবিলম্বে পদত্যাগ করুন। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে নিরপেক্ষ অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন দিন। তা হলে না হলে এই বাংলাদেশের মানুষ কিভাবে তাদের অধিকার আদায় করতে হয় তারা তা জানে।