করোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে বরিশালে মহানগর ইসলামিক শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন এর পক্ষ থেকে মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি পেশ করা হয়েছে। এ সময় তারা যথাযথ সুরক্ষা নিশ্চিত পূর্বক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দাবি জানায়।

আজ ৭ জুন ( সোমবার ) সকাল ১০ টায় বরিশাল নগরীর টাউন হল সম্মুখে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন বরিশাল মহানগর শাখার উদ্যোগে শাখা সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মাদ জাহিদুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় যথাযথ সুরক্ষা নিশ্চিত পূর্বক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সভাপতির বক্তব্যে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন বরিশাল মহানগর সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ১৫ মাস যাবৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকা এবং যথাযথ বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহন না করা কোন উন্নয়নশীল দেশের জন্য সুখকর নয়। দীর্ঘদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারনে শিক্ষার্থীরা অনলাইন গেমস,মাদক সেবন,ইভটিজিং সহ কিশোর গ্যাং এর মাধ্যমে নানা ধরনের অপরাধে জড়িয়ে পরছে। দীর্ঘদিন লকডাউনের বদৌলতে শিক্ষা ব্যবস্থা ও অর্থনৈতিক অবস্থা ভেঙে পরেছে। শিক্ষার্থীরা তাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে হতাশাগ্রস্থ। এমন যখন সার্বিক অবস্থা তখন নতুন করে ঘোষিত লকডাউন জনগনের কাছে মরার উপর খাঁড়ার ঘা।

তিনি আরও বলেন গণমাধ্যমের কল্যাণে আমরা দেখতে পেয়েছি গ্রাম গঞ্জের অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মাদকের আখড়া ও গোয়ালঘরে পরিনত হয়েছে।এগুলো প্রমান করে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা অনিশ্চিত গন্তব্যের দিকে ধাবিত হচ্ছে। এদেশের শিক্ষাখাতের অবস্থা কতটা করুন।

তাছাড়া, ১৫ মাস যাবৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের কারনে অনেক বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অস্তিত্ব বিলীন হওয়ার পথে। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকমন্ডলী মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে।আবার অনেকেই এই মহান পেশা ছেড়ে জীবিকা নির্বাহের জন্য বেছে নিয়েছে ভিন্ন পেশা।যা যেকোন দেশের জন্য অকল্যাণকর। এমন পরিস্থিতিতে যথাযথ সুরক্ষা নিশ্চিত পূর্বক সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া সময়ের দাবি।একই দাবিতে ইশা ছাত্র আন্দোলন কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসাবে বরিশাল মহানগর শাখা ৩০ মে -৬ জুন পর্যন্ত গণস্বাক্ষর কর্মসূচি পালন করেছে। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি পেশ করা হয়,জেলা প্রশাসক মহোদয় এর পক্ষে স্মারক লিপি গ্রহন করেন (উপ পরিচালক,স্থানীয় সরকার বরিশাল জেলা) উপ সচিব মোঃশহীদুল ইসলাম।এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে আগামী ১০ জুন থানায় থানায় ও ইউএনও বরাবর স্মারক লিপি পেশ করা হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় শিক্ষক ফোরাম কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি প্রিন্সিপাল সুলতান মাহমুদ, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের ববি সভাপতি এস এম তৌহিদ বাশার,BSMRSTU সাধারণ সম্পাদক রাজন শিকদার,ইশা ছাত্র আন্দোলন বরিশাল মহানগর সহ-সভাপতি মুহাম্মাদ ইব্রাহীম খান, সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর আহমেদ শোভন, দাওয়াহ ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক গাজী মুহাম্মাদ রেদোয়ান, তথ্য গবেষণা ও প্রচার সম্পাদক ইয়াকুব সিয়াম, প্রকাশনা ও দফতর সম্পাদক মুহাম্মাদ সিরাজুল ইসলাম, অর্থ ও কল্যাণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম সুজন, স্কুল ও কলেজ সম্পাদক এ এস এম হাসিবুল্লাহ,সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক মুহাম্মাদ আলমগীর হোসাইন,কার্যনির্বাহী সদস্য এইচ এম রেদওয়ানুল ইসলাম, মুহাম্মাদ আরাফাত তালুকদার সহ থানা ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ প্রমুখ।