ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ঢাকা (আইএসডি) গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করা ২০২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য সনদ প্রদান অনুষ্ঠানের (গ্র্যাজুয়েশন সেরেমনি) আয়োজন করা হয়েছে। ভার্চুয়াল মাধ্যমে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষক ও কর্মকর্তাগণ অংশগ্রহণ করেন।

গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করা শিক্ষার্থীদের নিয়ে ফটো মন্তাজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি শুরু হয়। এরপর উদ্বোধনী বক্তব্য প্রদান আইএসডি’র পরিচালক ড. কার্ট নর্ডনেস। অ্যাকাডেমিক বছরের ফলাফলে সর্বোচ্চ ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সিজিপিএ অর্জনকারী রিজলিয়ানা খান এবং এলমা আমান ভ্যালেডিক্টোরিয়ান ও স্যালুটেটোরিয়ান হিসেবে ২০২১ শিক্ষাবর্ষের প্রতিনিধি হয়ে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

হাই অনার রোল (গ্র্যাড ১২ -এ সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৮) ও অনার রোল (গ্র্যাড ১২ -এ সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫) সহ গ্র্যাজুয়েটদের মধ্যে অ্যাকাডেমিক সাফল্য অর্জনের পুরস্কার প্রদান করা হয়। শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে তাদের ভবিষ্যতের জন্য করণীয় বিষয়গুলো নিয়ে অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেন শিক্ষার্থীদের নির্বাচিত দু’জন শিক্ষক।

অনুষ্ঠানে ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ঢাকা’র (আইএসডি) সেকেন্ডারি প্রিন্সিপাল ক্রিস বয়েল বলেন, ‘এই প্রতিকূল সময়ে ২০২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা কী হারিয়েছে সেটি দিয়ে তাদের মূল্যায়ন হবে না, বরং এই কঠিন সময় তারা কীভাবে মোকিবেলা করেছে এ নিয়েই তাদের মূল্যায়ন করা হবে। আমরা খুবই আনন্দিত যে, ২০২১ শিক্ষাবর্ষের ২৩ জন প্রতিভাবান শিক্ষার্থীর গ্র্যাজুয়েশন উদযাপন করছি। তারা এখন বিশ্বের তরুণ নেতাদের কাতারে শামিল হবে এবং বিশ্বে ইতিবাচক পরিবর্তন নিয়ে আসবে। আইএসডির সকল গ্র্যাজুটদের অভিনন্দন।’

শিক্ষার্থীদের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি প্রদানের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি শেষ হয়। শিক্ষার্থীরা তাদের ২০২১ শিক্ষাবর্ষের গ্র্যাজুয়েশন ক্যাপের ট্যাসেলগুলোকে ডান দিক থেকে বাম দিয়ে নিয়ে প্রতীকী অর্থে তাদের গ্র্যাজুয়েট হবার যাত্রাকে প্রতীয়মান করেন। পাশাপাশি, ২০২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা আইএসডিতে তাদের অভিজ্ঞতা ও সুন্দর স্মৃতিগুলো নিয়ে একটি স্বল্প দৈর্ঘ্যের ভিডিও তৈরি করেন, যেটি অনুষ্ঠানে প্রদর্শন করা হয়। ভিডিওটি শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের মাঝে আবেগঘন মুহুর্তের অবতারণা করে। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা প্রত্যাশা করেন এই আবেগকে সাথে নিয়েই তারা তাদের পরবর্তী জীবনে এগিয়ে যাবেন।