বিতর্কিত গায়ক মাঈনুল আহসান নোবেল তার মানসিক ও শারীরিক বিচ্যুতির জন্য অনেক সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলছেন। তিনি চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং সুস্থ হয়ে নতুন গান নিয়ে হাজির হবেন বলেও জানিয়েছেন। বুধবার (১৯ মে) সন্ধ্যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার ভেরিফাইড পেজে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে এসব কথা লিখেছেন নোবেল। এদিকে আজ (২০ মে) স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে পাবনার মানসিক হাসপাতালে গেছেন সমালোচিত এই সঙ্গীতশিল্পী।

বেলা ৩টার কিছু আগে ‘নোবেল ম্যান’ নামে তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও শেয়ার করেন। ২ মিনিট ১৫ সেকেন্ডের সেই ভিডিওতে দেখা যায়, মানসিক হাসপাতালের চিকিৎসকের চেম্বারে সস্ত্রীক উপস্থিত হয়েছেন নোবেল। চেম্বারের পাশেই গ্রিলের ওপাশে বেশ কয়েকজন রোগীর সঙ্গে সাক্ষৎ করেন তিনি। তাদেরকে তাৎক্ষণিকভাবে জাতীয় সংগীত গেয়ে শোনান নোবেল।

তবে নোবেল মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নাকি শুধুই পরিদর্শন করতে গেছেন- সেটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ফোন দিয়েও তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এর আগে বুধবার (১৯ মে) দুপুরের দিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সাইবার ক্রাইম ডিভিশন নোবেলকে ডেকেছিল। পরে তিনি ডিএমপি সদর দপ্তরে এসে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি ও ক্রাইম ইউনিটের পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করেন।

নোবেল আরেকটি পোস্টে গতকালই জানান, আমি এই মুহূর্তে আমার মানসিক ও শারীরিক বিচ্যুতি নিয়ে কন্সার্নড। আমার পরিবারের সমর্থনে আমি চিকিৎসা গ্রহণ করছি ও আল্লাহর রহমতে শীঘ্রই সুস্থ হয়ে নতুন গান নিয়ে ফিরে আসব।

তিনি আরও জানান, আমি যেহেতু বাংলাদেশের সাইবার আইন ও পুলিশের সাইবার ইউনিটের কার্যক্রম বিষয়ে সচেতন, আমি সচেতনভাবে দেশের আইন বা নৈতিকতার বাইরে কিছু করতে চাই না বা আর করব না, তারপরও আমার অনাকাঙ্ক্ষিত কর্মের জন্য যেকোনো আইনি ব্যবস্থা নেয়া হলে তা মাথা পেতে নেব। আমিও আশা করব আপনারা সবাই আমাকে ক্ষমা করে দিয়ে আপনাদের সেবা করার সুযোগ করে দিবেন।