দক্ষিণ আফ্রিকার ব্লুমফন্টেইনের বাংলাদেশি মালিকানাধীন দোকানপাটে কৃষ্ণাঙ্গদের হামলার ঘটনায় পুরো শহরে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। দাবি দাওয়া নিষ্পত্তি না হওয়ায় আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন স্থানীয় মাংগুয়ান কনসার্ন কমিউনিটির বাসিন্দারা। এ অবস্থায় চরম আতঙ্কে দিন পার করছেন সেখানে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

গেল কয়েকদিনের তাণ্ডবের পর মঙ্গলবারও (১৯ মে) নানা দাবি দাওয়া নিয়ে ব্লুমফন্টেইনের মূল শহরে ঢুকে পড়ে স্থানীয় বিক্ষুব্ধ কৃষ্ণাঙ্গরা। কয়েকটি ভাগ ভাগ হয়ে রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে দাবি আদায়ে সোচ্চার রয়েছেন তারা। আন্দোলনের অংশ হিসেবে দিনের শেষভাগে শহরের শপরাইট, পিক অ্যান্ড পে’সহ বড় বড় ব্র্যান্ড শপগুলোতে হামলা ও লুটপাট চালায়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে স্স্পেশাল ব্রাঞ্চের পুলিশ মোতায়েন করেও আন্দোলন দমাতে ব্যর্থ হচ্ছে প্রশাসন।

এ অবস্থায় চলমান পরিস্থিতিতে সতর্ক ও নিরাপদে থাকতে প্রবাসীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির বাংলাদেশি কমিউনিটি সংগঠনগুলো।

তবে, ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় এখন পর্যন্ত দেশটির বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হয়নি বলে অভিযোগ প্রবাসী বাংলাদেশিদের।

সম্প্রতি ব্লুমফন্টেইনে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে এক কৃষ্ণাঙ্গ নিহতের জেরে শহরটিতে ব্যাপক ভাংচুর চালায় স্থানীয় মাঙ্গুয়ান কনর্সান কমিউনিটির বাসিন্দারা। এতে অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয় চার শতাধিক বাংলাদেশি মালিকানাধীন দোকানপাটে।