ঢাকা শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২২

Popular bangla online news portal

আমি নিজেই একটা বাহিনী : শামীম ওসমান


নিউজ ডেস্ক
১৬:৫০ - শনিবার, আগস্ট ২৭, ২০২২
আমি নিজেই একটা বাহিনী : শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেছেন, যেই মহল্লায় আপনি থাকেন, সেটাই তো আপনার বাংলাদেশ। যেখানে আমার ছোটবেলা কাটিয়েছি, সেটাই তো আমার বাংলাদেশ। যে যেই এলাকায় থাকেন, সেই এলাকায় মানুষের প্রতি দায়িত্ব পালন করেন। যারা বিশেষ করে আমার দল করেন। আমি মাস্তান চাই না, লাঠিয়াল চাই না। হুমকি চাই না। মোটরসাইকেল বাহিনী চাই না। আমি নিজেই একলা একটা বাহিনী। বুকে সাহস আছে। দেশের জন্য ভালো কাজ করতে হবে। আজকে আপনারা যে ভালোবাসা দেখিয়েছেন সমাবেশে, আপনাদের ভালোবাসায় আমি কৃতজ্ঞ।  

শনিবার (২৭ আগস্ট) বিকালে জেলা আওয়ামীগ কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত বিশাল সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে গত কয়েকদিন যাবৎ বিভিন্ন স্থানে কর্মী সভা করেন সংসদ সদস্য শামীম ওসমান। নেতাকর্মীরা তার ডাকে সাড়া দিয়ে বিভিন্ন এলাকা থেকে মিছিল নিয়ে সমাবেশে উপস্থিত হয়। 

শামীম ওসমান বলেন, সামনে একটা কঠিন সময় আসছে। আওয়ামীলীগ সরকারের পতন করাবে এজন্য না। ওরা বাংলাদেশটাকে ধ্বংস করতে চায়। ওরা এখনো বাংলাদেশের স্বাধীনতা মেনে নিতে পারে নাই।  না মানারই কথা, ওরা ঈমানদার। ওরা ওদের জায়গায় ঠিক আছে। আমরা স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি বিভক্ত। এখন এক হওয়ার সময়। শুধু আওয়ামীলীগ নয়, দেশকে যারা ভালো বাসেন তাদের এক হওয়ার সময়। অনেকেই বুঝে না, কিংবা বুঝেও না বোঝার অভিনয় করি।

আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আগামীকাল আমি থাকব কিনা জানি না। নারায়ণগঞ্জে যারা আওয়ামীলীগ করেন কিংবা আওয়ামীলীগের পরিবারে বড় বড় নেতা-নেত্রী আছেন। আমি কর্মী মানুষ।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বদৌলতে বড় বড় পদ পেয়েছেন, দয়া করে মাঠে নামেন। আওয়ামীলীগের জন্য নাহ, নেত্রীর জন্য নাহ, আসেন  বাংলাদেশকে বাঁচানোর জন্য আমরা সবাই একসাথে কাজ করি। ২০২৪ যখন নির্বাচন হবে, জাতির পিতার কন্যা যখন ক্ষমতায় আসবেন। আমাকে বইলেন, আমি সড়ে যাবো নিজের ইচ্ছায় আপনারা পদ-পদবী নিয়ে থাইকেন শান্তিতে। আমার কোন আপত্তি নাই।  পদ-পদবী কোন লোভ লালসায় রাজনীতি করি না।  

 সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মোহাম্মদ বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা, মহানগর আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি চন্দন শীল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদা মালা প্রমুখ। এছাড়াও মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, শহর যুবলীগের সভাপতি শাজাদাত হোসেন সাজনু, জেলা মহিলা লীগের সভাপতি শিরিন বেগম, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল সহ আওয়ামীলীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।