ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলায় বাংলাদেশ সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ভারতে যাওয়ার সময় নারী, পুরুষ, শিশু ও দালালসহ ৯ বাংলাদেশিকে আটক করেছে বিজিবি।
সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে মহেশপুর উপজেলার পদ্মপুকুর ও বেতবাড়িয়া এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মহেশপুর ৫৮ বিজিবির সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম খান।

তিনি জানান, গোপন সংবাদের তারা জানতে পারে মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে কয়েকজন বাংলাদেশি ভারতে যাচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে ওই সকল স্থানে অভিযান চালিয়ে পুরুষ, নারী, শিশু ও দালালসহ ৯ জনকে আটক করা হয়।

আটককৃত বাংলাদেশি নাগরিকদেরকে অবৈধভাবে বাংলাদেশ থেকে ভারতে গমনের চেষ্টা করার অপরাধে বাংলাদেশ পাসপোর্ট অধ্যাদেশ ১৯৭৩ এর ১১(১)(গ) ধারায় ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর থানায় মামলা দায়ের ও সোপর্দ করেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলেন- যশোর জেলার শার্শা উপজেলার ছোট-আচড়া গ্রামের আ. হাকিম কাজীর স্ত্রী হাছিনা বেগম (৬০) একই গ্রামের আ. হানিফের ছেলে নাদিম আহম্মেদ (২৩), বাগেরহাট জেলার কাতৃকদি গ্রামের জলিল শিকদারের স্ত্রী কারিনা বেগম (২২) ও তার ছেলে রায়হান শিকদার (০২), মঠেরপাড় গ্রামের মো. আনোয়ার খলিফা ছেলে মো. শাহজালাল (২০), গজালিয়া, গ্রামের সেকেন্দার আলীর ছেলে মো. মিন্টু খা (৪৮), খুলনা জেলার ইন্দুহাটি গ্রামের সাত্তার মোল্লার মেয়ে রিনা বেগম (২৫), বানিয়া গ্রামের শামছুর রহমানের মেয়ে নাজমা খাতুন (৩০)।

এছাড়াও অবৈধভাবে সীমান্ত পারাপারে সহায়তাকারী দালাল ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার যাদবপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামের মো. জামাল হোসেনের ছেলে মো. আল মামুন (১৯)।