সামরিক জোট ন্যাটোকে নিজের শক্তিমত্তা প্রদর্শনের জন্য ক্রিমিয়া উপত্যকায় বড় ধরনের সামরিক মহড়ার আয়োজন করতে যাচ্ছে রাশিয়া। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) এক ঘোষণায় জানায়, আগামী মার্চ মাসের মাঝামাঝি সময়ে ক্রিমিয়া উপত্যকার ‘উপুক’ অঞ্চলে এ মহড়া অনুষ্ঠিত হবে।

মহড়ায় এয়ারবোর্ন, প্যারাট্রুপার ও আর্টিলারি বাহিনী অংশ নেবে। এতে রাশিয়ার ছত্রীসেনারা অপরিচিত স্থানে অবতরণের কসরৎ করবেন। সেইসঙ্গে তারা কল্পিত শত্রুসেনাদের অস্ত্রসস্ত্র দখল করে নিজেদের আগের অবস্থানে ফিরে যাবেন।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় আরো বলেছে, আসন্ন মহড়ায় তিন হাজারের বেশি ছত্রীসেনা ও সামরিক বাহিনীর প্রায় ২০০ ইউনিট অংশ নেবে।

রাশিয়া সাম্প্রতিক সময়ে একাধিকবার এই অভিযোগ করেছে যে, করোনাভাইরাসের প্রকোপ সত্ত্বেও ন্যাটোভুক্ত দেশগুলো তাদের সামরিক মহড়া বৃদ্ধি করেছে যার মূল লক্ষ্য রাশিয়া। এরই প্রেক্ষিতে রাশিয়াও বড়সড় সামরিক মহড়ার ঘোষণা দিয়েছে বলে জানিয়েছেন আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরা।