মার্সিসাইড ডার্বি উপভোগের অপেক্ষায় ইপিএল ভক্তরা। মুখোমুখি হচ্ছে দুই নগর প্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুল এবং এভারটন। অ্যানফিল্ডে ম্যাচটি মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১১টায়। আরেক ম্যাচ সাউদাম্পটনের বিপক্ষে মাঠে নামবে চেলসি। শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শুরু হবে।

দুর্ভাগ্য নাকি, নড়বড়ে কৌশল। মাস্টার মাইন্ড ইয়্যুর্গেন ক্লাপও নিশ্চয়ই হারিয়ে খুঁজছেন নিজেকে। ক্লাব ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মতো ঘরের মাঠে তিন ম্যাচে হারতে হয়েছে। এমন যখন দলের অবস্থা, তখন মার্সেসাই ডার্বিতে মুখোমুখি হচ্ছে লিভারপুর।

দলের এমন পরিস্থিতে আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নেয়ার ম্যাচে প্রতিপক্ষ এভারটন। যে দলটার বিপক্ষে দুর্দান্ত রেকর্ড অল রেডদের। এখন পর্যন্ত খেলা ২৩ ম্যাচে মাত্র ১টি জয় এভারটনের। তাছাড়া একমাত্র দল লিভারপুল যাদের বিপক্ষে টানা ২০ ম্যাচ হেরেছে তারা। ম্যাচে কতটা উত্তেজনা ছড়ায় তা বোঝা যায় রেড কার্ডের রেকর্ড দেখে। এখন পর্যন্ত দুই দল ২২টি লাল কার্ড দেখেছে ম্যাচে।

দুশ্চিন্তার ব্যাপার মিডফিল্ডার ফাবিনহো আর জেমস মিলনারের ফিটনেস নিয়ে। দিয়াগো জোটাকে নিয়েও রয়েছে সন্দেহ। আশার কথা হলো নাবি কেইটা ফিরেছেন ইনজুরি কাটিয়ে।

হ্যান্ডার্সন, থিয়াগো, ভার্জিল ভ্যান ডাইকরা রয়েছেন দারুণ ছন্দে। নিকো উইলিয়ামস, আলেক্সার্ডার আর্নল্ড, অ্যান্ড্রো রবার্টসনরাও খেলছেন দুর্দান্ত। সাদিও মানে, ফিরমিনো, মো সালাহও জ্বলে উঠছেন দলের প্রয়োজনে। কিন্তু কেন যেন পুরনো ছন্দটা খুঁজে পাচ্ছে না বর্তমান লিগ চ্যাম্পিয়নরা। লিভারপুলের পুরনো ইতিহাস বজায় থাকবে নাকি অল রেডদের দুঃসময়ের সুযোগটা নিবে এভারটন।

টেবিলের ৬ নম্বরে থাকা লিভারপুল দুঃসময় কাটালেও দুর্দান্ত সময় কাটাচ্ছে চেলসি। পয়েন্ট টেবিলের ৪ নম্বরে উঠে এসেছে ব্লুজরা। টানা ৬ ম্যাচে অপরাজিত দলটা। দারুণ এই সময়ে সাউদাম্পটেনের মাঠে ভ্রমণ করছে চেলসি।

চেনা প্রতিপক্ষের বিপক্ষেও ইতিহাস নিজেদের পক্ষে। ১১ বারের দেখায় একটি জয় পেয়েছিল সাউদাম্পটন। আর ডাগ আউটে থমাস টাচেল যোগ দেয়ার পর পাল্টে গেছে দলের চিত্র। কার্লোস অ্যানচলেত্তির পর একমাত্র কোচ যার অধীনে প্রতিপক্ষের মাঠে টানা ৩টি জয় পয়েছে ব্লুজরা।

দুশ্চিন্তার খবর হলো থিও ওয়ালকট, ইব্রাহিমা দিয়ালো রয়েছেন স্কোয়াডের বাইরে। গোড়ালি ইনজুরির কারণে টামি আব্রাহাম থাকছেন সাইড লাইনে। তবে ইনজুরি কাটিয়ে ফিরেছেন কাই হ্যাভার্টস।

অলিভার জিরো, পুলিসিচ, চিলউড, ওডোই, ওয়ের্নাররা জ্বলে উঠতে পারলে আর একটা জয় নিশ্চয়ই পাবে চেলসি।