মহানবী (সা.)-এর মানহানি ব‌ন্ধে শরীয়া আইন জারি করাসহ এ বিষয়ে দ্রুত বিচারের জন্য পৃথক ট্রাইব্যুনাল ও শক্তিশালী মনিটরিং সেল গঠন করার দাবি জানিয়েছে যুব আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত।

রোববার (২৯ নভেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দা‌বি জানায় সংগঠন‌টি।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, সাংবিধানিক রাষ্ট্রদ্বীন ইসলাম এবং উনার প্রধান হিসেবে প্রাণপ্রিয় রসূল, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মুবারক শানে মানহানির বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট ও কার্যকরী শরিয়া আইন জারি করা, যার সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধানসহ এ বিষয়ে দ্রুত বিচারের জন্য পৃথক ট্রাইব্যুনাল ও শক্তিশালী মনিটরিং সেল গঠন করার পাশাপাশি পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তে ফ্রান্সের মত মানহানিকর ঘটনা ঘটলে, রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো এবং জনগণের আবেগ-অনুভূতি ও দাবি-দাওয়ার বিষয়গুলো যথাস্থানে বা অভিযুক্ত রাষ্ট্রে পৌঁছে দেয়া এবং এমন অপকর্মের পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে ফ্রান্সসহ বিশ্বের সকল দেশকে ৪টি নীতি গ্রহণে বাধ্য করতে হবে।

বক্তারা বলেন, সরকারের উচিত এই নীতিগুলো আন্তর্জাতিক অঙ্গন তথা জাতিসংঘ বা ইউরোপীয় ইউনিয়নে প্রস্তাব আকারে উত্থাপন করা। প্রয়োজনে ওআইসি’র মত ইসলামী জোটগুলোকে সাথে নিয়ে দাবিগুলো উত্থাপন করা।

যুব আনজুমানে আল বাইয়্যিনাতের দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- ১. পবিত্র দ্বীন ইসলাম পালন করার পূর্ণ স্বাধীনতা থাকতে হবে, ২. পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার অনুভূতিকে সম্মান করতে হবে, ৩. পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার অনুভূতিতে আঘাত করাকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে জারি করতে হবে, ৪. পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার অনুভূতিকে আঘাত করার এই জঘন্য অপরাধকে আইন করে বন্ধ করতে হবে।

যুব আনুজমানের সভাপতি মুহম্মদ আরিফুর রহমানের সভাপতিত্বে সংবাদ স‌ম্মে‌লনে আরও উপ‌স্থিত ছি‌লেন সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মেজবাহ উদ্দিন সুমনের যুব আঞ্জুমানের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহম্মদ আমিনুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক সাইয়্যিদ মুহম্মদ নূরুদ্দীন পলাশ, অর্থ সম্পাদক মুহম্মদ আবু বকর সিদ্দীক হাসান, দফতর সম্পাদক মুহম্মদ জিয়াউল হক, মুহম্মদ আবীর, মুহম্মদ সামদানী প্রমুখ।