মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌপথে ফেরি চলাচল বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থা (বিআইডব্লিউটিসি)। একই সঙ্গে বিকল্প নৌপথ ব্যবহারের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

নদীতে তীব্র স্রোত ও ভাঙনের কারণে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌপথে ফেরি চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। এজন্য বিকল্প হিসেবে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথ ব্যবহারের জন্য জনসাধারণের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি।

শুক্রবার (৩১ জুলাই) রাত ৮টায় এই নৌপথে সব ধরনের ফেরিসহ অন্যান্য নৌযান চলাচল বন্ধ করে দেয় ঘাট কর্তৃপক্ষ। এর আগে একই দিন দুপুর ২টার দিকে হঠাৎ পদ্মা নদীতে ভাঙন শুরু হলে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায় কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডের কয়েকশ ফুট এলাকা।

ফেরিঘাট সূত্র জানায়, পদ্মা নদীতে তীব্র স্রোতের কারণে প্রায় মাস খানেক ধরে শিমুলিয়া ঘাট হয়ে নৌ চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। শুক্রবার পদ্মা সেতুর মুন্সিগঞ্জের কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে ভাঙন দেখা দেয়। সেই সঙ্গে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায় পদ্মা সেতুর সংরক্ষিত এলাকা। ফেরি ও নৌযান চলতে গিয়ে স্রোতের কারণে দুর্ঘটনায় পড়তে পারে এজন্য চলাচল বন্ধ রাখা হয়।

মাওয়া নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী ট্রাফিক পরিদর্শক মো. মাহাবুবুল ইসলাম বলেন, বিআইডব্লিউটিএর হেড অফিস থেকে ফেরি বন্ধের নোটিশ আসার পর ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। গত মঙ্গলবার শিমুলিয়ার তিন নম্বর ঘাটের সংযোগ সড়ক ভেঙে যায়। শুক্রবার কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডের বেশ কিছু এলাকা ভেঙে যাওয়ায় পুরো এলাকা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় এই নৌপথে নৌযান চলাচল বন্ধ করা হয়। বিকল্প হিসেবে পাটুরিয়া ঘাট ব্যবহারের কথা বলা হয়েছে।