সুশান্ত সিংয়ের হঠাৎ চলে যাওয়া যেন কিছুতেই মেনে নিতে পারছে না তার ভক্তকুল ও আত্মীয় স্বজনরা। ভারতীয় সিনেমা জগতের এই তরুণ দুর্দান্ত অভিনেতার চলে যাওয়ায় শোকের ছায়া নেমে পড়েছে পুরো বলিউড পাড়ায়।

গতকাল রোববার (১৪ জুন) ভারতের বান্ড্রায় অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের নিজ বাসা থেকে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশ জানায়, আত্মহত্যাই করেছেন সুশান্ত। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে, গলায় ফাঁস লাগানোর কারণে শ্বাসরুদ্ধ হয়েই মৃত্যু হয়েছে সুশান্তের। কিন্তু সুশান্তের ঘর থেকে কোনো সুইসাইড নোট মেলেনি।

কিন্তু এই রিপোর্ট মানতে রাজি নন সুশান্তের মামা আরসি সিংহ।

সুশান্তের মামা আরসি সিং দাবি করেছেন, সুশান্ত খুবই সাহসী ছেলে। ও কখনই আত্মহত্যা করতে পারে না। তাকে খুন করা হয়েছে। তিনি সিবিআই তদন্তেরও দাবি জানিয়েছেন। তিনি বলেন, তদন্ত করলেই বেরিয়ে আসবে আসল তথ্য।

তিনি আরো বলেন, কয়েকদিন আগেই তার প্রাক্তন ম্যানেজার দিশা সাইলানের মৃত্যু হয়। তাকেও খুন করা হয়েছে বলেও দাবি করেন সুশান্তের এই আত্মীয়।

সুশান্তের আরেক আত্মীয় লাভলি বলেন, ‘ভাল করে তদন্ত হওয়া উচিত। কয়েক দিন আগেই সুশান্তের ম্যানেজার দিশা সালিয়ান আত্মহত্যা করেন। এ বার আমাদের ছেলেটা আত্মহত্যা করল। এটা কাকতালীয়, বিশ্বাস করি না।’

ভারতের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, ঘটনার আগে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিয়েছেন তিনি। অর্থাত্‍ তার বন্ধুরা ফ্ল্যাটেই উপস্থিত ছিলেন। সকালে তার পরিচারিকা দরজা না খুলতে পারলে ভাঙার চেষ্টা করেন। ভাঙতে না পেরে একজন মেকানিক ডেকে আনা হয়। এরপরই দরজা খুলে তার ঝুলন্ত শরীর উদ্ধার করে তারা।